Tag Riaru Onigokko (2015) জাপানিজ মুভি এক্সপ্লেনেশন!

Kawsar Ahamed April 1, 2019 Views 5937

╚●► Tag  – Riaru Onigokko (2015) – এক্সপ্লেনেশন ◄●╝

এটি একটি ওপেন ইন্ডেড মুভি। যে যার মতো করে এক্সপ্লেইন করতেই পারেন। আমি আমার মতো করে এক্সপ্লেইন করার চেষ্টা করবো।

? দূর্বোধ্য এক জাপানিজ মুভি। জাপানিজ মুভি একদম ই দেখা হয় না। কয়টা দেখেছি ঠিক বলতে পারছিনা। তন্মধ্যে Tag মুভিটির কথা তো কখনও ভুলবো না। আমার মতে এটি জাপানিজ মুভিগুলোর মধ্যে সেরা এবং কমপ্লিকেটেড। ইতিমধ্যে অনেকেই দেখেছেন মুভিটি। ইনজয় ও করেছেন। কিন্তু , মুভিটির মাধ্যমে কি বুঝানো হয়েছে , তা কি আদৌ কেউ বুঝেছে কিনা সন্দেহ। আমরা আজ এই মুভিটি এক্সপ্লেইন করবো।

╠═══ মুভি ইনফো ═══╣

●► মুভি : Rag (Riaru Onigokko)
●► রিলিজ : ২০১৫
●► রিজিওন : জাপানিজ
●► জনরা : একশন , হরর , মিস্ট্রি এবং ড্রামা

? IMDb রেটিং : ৬.১/১০
⭐ পারশনাল রেটিং : ৮.৮/১০

পারশনাল রেটিং বেশি দেয়ার কারণ একটাই। এই ধাচের আনসল্ভড ইন্ডিং মুভিগুলো বেশ ভাবায় এবং পছন্দ ও করি ?

বি:দ্র: মুভিটি ২০১৬ সালে দেখেছি। তাই অনেক কিছুই ভুলে গিয়েছি। কোন ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমাপার্থী ?

╚●► প্লট ◄●╝

মুভিটির স্টোরী মোটামুটি শুরুই হয় বাস (Bus) হতে। বাসে করে ছাত্রীরা হাইওয়ে দিয়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় এক শক্তিশালী বাতাস এসে দু’টি বাস পুরো অর্ধেক কেটে ফেললো। সাথে বাসের ভেতরের সবাই ততক্ষণাৎ দুই টুকরো হয়ে যায়। কিন্তু বেঁচে থাকে শুধুমাত্র একজন ছাত্রী। ভয় পেয়ে দৌড়াতে থাকে। এক পর্যায়ে কিছু সাথীর দেখা পায়। দূর্ভাগ্যবসত তাদের ও সেই বাতাস একদম দুই টুকরো করে কেটে ফেলে। এটা ছিলো একটা চ্যাপ্টার। এবার এই মেয়েটি নিজের স্কুলে যায়। সেখানেও দেখা যায় যুদ্ধের মতো অবস্থা। ছাত্রীদের উপর আক্রমন করে চলেছে স্কুল হতে। সবাই মারা যাচ্ছে একে একে। আবার একটু পরে দেখানো হয় একটি বিয়ে বাড়িতে সবাই অদ্ভুত আচরন করছে। শেষে সেখানে ওর মৃত্যুর পর শুরু হয় আরেকটা চ্যাপ্টার। ঠিক এভাবেই ও যেখানেই যাচ্ছে , আসে পাশের সবাই মারা যাচ্ছে। শুধু সে বেঁচে ফিরছে। মুভির শেষে দেখানো হয় ঠিক ওর মতোই হুবহু অনেক মেয়েকেই একটা কাঁচের ঘরে এক গুহায় বন্দী করে রেখেছে। আর কেউ সেখানে বসে কম্পিউটারে গেম খেলছে। সেখানে গেম এও ছিল ঠিক সেই মেয়েটি। মানে এতক্ষণ যা আমরা মুভিতে দেখলাম , গেম এর ভেতরে ঠিক তাই দেখানো হচ্ছে। আসলে হচ্ছে টা কি? কি ছিল এই মুভিতে? এতো কিছু কিভাবে হলো , আর কেনোই বা হলো?

⭕ এক্সপ্লেনেশনে যাওয়ার আগে সবাইকে সাজেস্ট করবো উক্ত মুভিটি দেখুন। তারপর এক্সপ্লেনেশন পড়ুন ⭕

╚●► এক্সপ্লেনেশন (উইথ স্পয়লার) ◄●╝

এতক্ষণে সবাই ধরে নিয়েছে আরেহ এটা তো ভিডিও গেম। কিন্তু ভাই , যদি ভিডিও গেম ই হয় , তাহলে মেয়েটাকে বাস্তবে কিভাবে দেখছেন? নিশ্চই এবার ভাবনায় পড়ে গিয়েছেন? ওকে , ক্লিয়ার করা যাক।

●► আসলে মুভিতে যা যা ছিল , পুরোটাই ছিল ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড। সে ওয়ার্ল্ড হলো আমাদের এই ওয়ার্ল্ড এর একটা হুবহু কপি। তবে ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড না বলে ডিরেক্ট অতীত বললেও পারি। কেনোনা , যাদের গেম এ দেখতে পাচ্ছেন , তারা অনেক আগেই মারা গিয়েছেন। তাদের মারা যাওয়ার পরে তাদের চিন্তাশক্তিতে বাস্তবিক রূপে দেখানো হয়েছে এবং তাদের মাইন্ড নিয়ে খেলছে Devils রা।

●► মুভিতে ৩ টি মেয়ে ছিলো মূল চরিত্রে। এর মানে মুভিতে খেলোয়ার ৩ জন ৩ চ্যাপ্টারে। আর তাদের কন্ট্রোলার হলো তাদের আসে পাশের মানুষ এবং পুরো প্রোগ্রাম চলছে এই ভবিষ্যত জগতের বৃদ্ধের হাতে যাকে আমরা ডেভিল বলতেই পারি। এইটুকু নিশ্চই বুঝেছেন?

●► প্রশ্ন আসতে পারে মেয়েটা তো মারা গিয়েছিলো। তাহলে ভবিষ্যতে কিভাবে আসলো? এটা হলো , যে প্রোগ্রাম রান করেছে , তার প্রোগ্রাম টা এমনভাবে ছিলো যাতে পুরো গেম এন্ড হয়ার পর তা অতীত হতে ভবিষ্যৎ পর্যন্ত যাত্রা করতে পারে। আপনি এটাকে প্রোগ্রাম বলতে পারেন বা কোন একটি রাস্তা বা লাইনলাইন ও মনে করতে পারেন। যেভাবে আপনার বুঝতে সুবিধা হয়।

●► শেষে মেয়েটি কেনো মরে যায় আর সাদা পালক কোথা হতে আসে এটাও একটা প্রশ্ন?

উত্তর : মেয়েটি পিউর বা ভাল চরিত্রের ছিলো অথবা নিষ্পাপ ও বলতে পারি। সাদা পালক শান্তির প্রতিক। সাদা পালক মানে শান্তি / ভাল / নিষ্পাপ। তাই সে আত্মহত্যা করার পর সাদা পালক দেখা গিয়েছিলো।

●► শেষে সাদা বরফের উপর শুয়ে ছিলো কেনো?

উত্তর : সাদা বরফের উপর শুয়ে থাকা দিয়ে মৃত্যু অথবা কোন অবস্থান পরিবর্তন করে নিজ শান্তিপ্রিয় স্থানে মুক্ত হয়ে আসাকে বুঝায়। মানে , আপনি এখন স্বাধীন। মুক্ত আপনি। তবে তা শুধু আপনার ভাবনাতে। আপনার মাইন্ডেই ? ব্যাপারটা ম্যাট্রিক্সের মতো ও লাগতে পারে কিঞ্চিৎ।

পরিশেষে বলবো , এটি একটি মাস্ট ওয়াচ ফিল্ম। কিছু ফিল্ম দেখার পর বেশ কিছুদিন ভাবায়। এটিও তেমন ই কিছুটা।

দেখে ফেলুন এবং মাথায় চাপ নিতেও প্রস্তুত হোন!

ধন্যবাদ আর্টিকেল টি পড়ার জন্য। ভুল ত্রুটি , মার্জনীয়। আশা করি সকলের নিকট বোধগম্য হবে ❤

© #MLWBD .COM | #FILMYBD .COM

উক্ত আর্টিকেল টি সম্পূর্ণ MLWBD এবং FILMYBD র প্রোপার্টী। যদি আপনি এই আর্টিকেল টি কোথায় শেয়ার করতে চান অথবা ব্যবহার করতে ইচ্ছুক , অবশ্যই ক্রেডিট দিবেন। ধন্যবাদ!

This Article is The Genuine Content Of MLWBD | FILMYBD. If You Want To Share Or Use it , Please Credit Us. Thanks!

Categories

Leave a comment

Name *
Add a display name
Email *
Your email address will not be published
Website

Download & Watch Online
x