Mulhalland Drive (2001) হলিউড মুভি রিভিউ এবং এক্সপ্লেনেশন! 

Kawsar Ahamed August 14, 2018 Views 2582

লিখছি আমি : Kawsar Ahamed

মুভি গ্রুপ : Movie Lovers World

 

★ Mulhalland Drive (2001) মুভি রিভিউ এবং এক্সপ্লেনেশন ★

.

বিবিসির মতবাদ অনুযায়ী ২১ সেঞ্চুরীরের সেরা মুভি “মুলহল্যান্ড ড্রাইভ” । হ্যা , এটাই সত্যি । ২১ শতকের সেরা কমপ্লিকেটেড মুভি এটাই । শুধু কমপ্লিকেটেড নয় , বলতে গেলে আপনার উপর এক প্রকার অত্যাচার করে যাবে । দুমড়ে-মুচড়ে খাবে আপনাকে ??

.

.

╠═══ মুভি ইনফো ═══╣

.

●► মুভি : মুলহল্যান্ড ড্রাইভ

●► রিলিজ : ২০০১

●► ডিরেক্টর : ডেভিড লিঞ্চ

●► জনরা : নিউ-নইর সাইকোলোজিক্যাল , রোমান্টিক ড্রামা , মিস্ট্রি

.

.

★ IMDb রেটিং : ৮/১০

★ পারশনাল রেটিং : ৯.৭/১০

.

অনেকে বলবে এই মুভির রেটিং ৯.৭ কিভাবে দেই? শুনুন , খান হেলাল বলেছিল : তুই বুঝলে বুঝ , না বুঝলে তুই অবুঝ ??

.

.

এই মুভিটে বুঝার জন্য সবচেয়ে ভাল একটি উদাহরন হতে পারে বলিউডের No Smoking মুভিটি । কিছু বিষয় মিল রয়েছে এই মুভির । যদি আপনি No Smoking দেখে থাকেন , আশা করি এই মুভির ধরন কিছুটা বুঝতে পারনেন । আগেই বলে দেই , No Smoking মুভির সাথে এই মুভির কোন প্রকার মিল নেই । জাস্ট No Smoking মুভির বিভিন্ন বিষয় যদি আপনি বুঝে থাকেন , এই মুভি দেখার ক্ষেত্রে তা কাজে লাগবে ।

.

.

╚●► প্লট (স্পয়লার ব্যাতিত) ◄●╝

.

মুভির শুরুটাই হয় মুলহল্যান্ড নামক এক রোডের একসিডেন্ট দিয়ে । মুভিতে এক অভিনেত্রীর একসিডেন্ট হয় । নাম তার রিটা । এতে সে আহত অবস্থায় এক বাড়িতে আশ্রয় নেয় । একসিডেন্টের ফলে সে তার অতীত সব ভুলে যায় । এমতাবস্থায় সে তার পরিচয় খুজতে থাকে আর সে বাড়িতে অবস্থানরত এক যুবতী (বেটি) তাকে সাহায্য করে । তারা দুইজন মেয়ে হয়া সত্ত্বেও দুইজনকে ভালবেসে ফেলে । একসময় রিটা কিছু একটা ফীল করতে পারে । সে বেটিকে নিয়ে একটি ক্লাবে যায় সেখানে যাদু মন্ত্র টাইপের কিছু দেখানো হচ্ছিল । সেখানে বার বার বলা হচ্ছিল , its an illusion । এটা শুনে দুইজন ই কেদে দিলো । এক পর্যায়ে তারা একটা বক্স পায় । সেটা নিয়ে বাসায় যায় । চাবি দিয়ে বক্স টা খোলার পরেই মুভিটা যেনো আকাশ থেকে পাতালে চলে যায় । কিছু বুঝে উঠার আগেই মুভির স্টোরী পাল্টে গেল এবং অন্য আরেক স্টোরী দেখা গেল । সেখানে দেখা গেল বেটির নাম ডায়ান আর রিটার নাম ক্যামেলিয়া । হুট করেই পুরো মুভির স্টোরী চেঞ্জ এবং মুভিতে দুইজনের নাম ও চেঞ্জ । মাথায় কেচাল বেধে যাবে একদম!

.

.

.

╚●► এক্সপ্লেনেশন ◄●╝

.

আসলে হয়েছিল টা কি এই মুভিতে? কি বুঝাতে চেয়েছিল ডিরেক্টর? স্টোরে এমন কেনো? মুভির মূল স্টোরীই বা কি ছিল?

.

.

প্রথমেই বলব আপনার মাথায় যদি পেচগোচ ওয়ালা মুভি না ঢুকে তাহলে এটা দেখে ৩০০ হাত দূরে থাকুন । এই মুভি Donnie Darko , Predestination , Mr.Nobody র চেয়েও ৫ গুণ কমপ্লিকেটেড :'( মাথা খারাপ নয় , পুরো মাথায় ঝম ধরিয়ে দিবে ১০০% গ্যারান্টি দিয়ে দিলাম । অনেকে inception দেখেই নাকি মাথা ঘুরায় । ভাই , inception এর চেয়ে ৫০ গুণ জটিল পেচে ভরা মুভি এটা । বাকিটা বুঝে নিন ??

.

.

●► নন লিনিয়ার ফিল্ম কাহাকে বলে বুঝেন? যেকোন সিনেমার ঘটনা সরলগতিতে এগোলে বলা হয় লিনিয়ার । মানে কোন পেচগোচ ছাড়া সহজভাবে কাহিনি এগিয়ে চলেছে , এটাকে লিনিয়ার বলা যায় । ঠিক তার উল্টোটা হল নন-লিনিয়ার । মানে মুভির কাহিনি ই শুরু হয় শেষ থেকে ?? যারা ক্রিষ্টোফ্যার নোল্যান এর Memento দেখে এবং বুঝে নিজেকে মহাজ্ঞানী ভাবছেন , তাদের জন্য দুই মিনিট সমবেদনা । কারন , মেমেন্টো মুভিটা শুরু হয় উল্টোভাবে । ধরেন 10 , 9 , 8 , 7 , 6 , 5 এভাবে উল্টোভাবে দেখানো হয়েছে সীনগুলু । তাই আপনি একটু বুদ্ধি খাটিয়ে মুভিটার লাস্ট কে ফার্স্ট আর ফার্স্ট কে লাস্ট ধরলেই কাহিনিটা বুঝে যাবেন । কিন্তু এমন যদি হয় যে কাহিনির প্রতিটা সিকুয়েন্স ই ভিন্ন । মানে শুরু হয়েছে এভাবে 11 , 7 , 8 , 2 , 3 , 4 , 5 , 6 , 9 , 10 , 1 এমন হলে কোন কাহিনির সীন এর পর আপনি কোন সীন মনে রাখবেন?

.

.

●► মুলহল্যান্ড মুভিটাকে মোট ১২ টা সিকুয়েন্সে ভাগ করা যেতে পারে । তবে মূল সিকুয়েন্স ১১ টা । ডিরেক্টর ডেভিড লিঞ্চ স্টোরীটাকে সাইকোলোজিক্যাল এবং ইলিউশন এর মিশ্রনে এমন বানিয়েছেন , যার কারনে এই মুভির প্রতিধন্ধী আজ পর্যিন্ত আসতে পারেনি । ১১ টা সিকুয়েন্স কে আমরা যেভাবে ভাগ করতে পারি ।

.

.

১) রিটার মুলহল্যান্ড রোডে একসিডেন্ট হয়  ।

২) অন্যের বাসায় আশ্রয় নেয় এবং সেখানে সে তার পরিচয় খুজে । সাথে ছিল তার সঙ্গী বেটি ।

৩) তারা ডায়ান নামক একজনের বাসায় যায় ।

৪) সেখানে একটা মরা লাশ দেখতে পায় ।

৫) বেটি নামক যুবতীকে ভালবেসে ফেলে ।

৬) তারা একটা ক্লাবে যায় সেখানে বার বার বলা হয় Its All An Illusion .

৭) এটা শুনে তারা কেদে ফেলে এবং অকারনেই ছটফট করতে থাকে ।

৮) তারা একটি নীল রঙ্গের বক্স পায় এবং সেটি খোলার পর পুরো মুভির স্টোরী চেঞ্জ হয়ে যায় । এবার বেটি হয়ে গেছে ডায়ান এবং রিটা হয়ে গেছে ক্যামিলিয়া ।

৯) ডায়ান এবং ক্যামিলিয়া লেসবিয়ান হয়ায় দুইজন দুইজনকে ভালবাসে। কিন্তু ক্যামিলিয়ার অন্য ছেলের প্রেমে পড়ে তাকে বিয়ে করতে চায় ।

১০) এটা ডায়ান সহ্য করতে না পেরে একজন হিটম্যান হায়ার করে ক্যামেলিয়াকে মারার জন্য এবং হিটম্যান বলে যে এই নীল রং এর চাবিটা তোমার বাসায় পেলে বুঝবে যে কাজ হয়ে গেছে ।

১১) সেদিন রাতে সে খুব অনুতপ্ত হয় এবং পরদিন সকালে একটা Cowboy তাকে বলে “এখনি জাগার সময়” এটা শুনে তার ঘুম ভাঙ্গে আর সে তার টেবিলের উপর নীল একটা চাবি দেখতে পায় । তার মানে ক্যামিলিয়াকে খুন করে ফেলেছে Hitman আর সে এই ব্যাপারে আরও অনুতপ্ত হয়ে মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে যায় এবং অবশেষে আত্মহত্যা করে ।

.

.

এই গেলো মুভিতে দেখানো ১১ টি সিরিয়াল বাই সিরিয়াল সীন । কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন যে এগুলু একটাও সিরিয়াল বাই সিরিয়াল নয় । উল্টালেও এগুলু সিরিয়ালে হবেনা :p । আমি বলছি এখানে কি হয়েছিল ঘটনাটা । মুভির ৯৫% ই কিন্তু স্বপ্ন ?? । এবার আপনার মাথায় প্রশ্ন আসবে , স্বপ্ন কইত্তে আইলো ভাই?

.

.

●► মুভিটার শুরু হয়েছে ৯ নাম্বার সীন হতে । ডায়ান ক্যামেলিয়াকে ভালবাসে । ক্যামেলিয়া তাকে ধোকা দিয়েছে বলে ডায়ান তাকে মারতে চায় ।  ডায়ান হিটম্যান হায়ার করার পর অনুতপ্ত হয়ে রাতে ঘুম দেয় ।  এই ঘুমের মধ্যেই পুরো মুভি । ঘুমের পর সীন ১ শুরু হয় । মানে ১১ নাম্বার সীনে ঘুমানোর পর স্বপ্ন দেখে । যেহেতু সে বাস্তবে একজন ব্যার্থ নারী । কিন্তু সে এটা মানতে রাজি না। সে স্বপ্নেও তাকে সফল ভাবে দেখতে চায় । তাই সে স্বপ্নে নিজেকে বানিয়ে দেয় ক্যামেলিয়া/বেটি আর ক্যামেলিয়াকে বানিয়ে দেয় রিটা।

.

●► সে স্বপ্নে দেখছে ক্যামেলিয়ার একসিডেন্ট হয় (১ নাম্বার সিকুয়েন্স) । মানে ৯ নাম্বার সীন এর পর একদম মুভির প্রথমে চলে যান ??

.

●► এবার কাহিনি আগের মত চলতে থাকবে ৮ পর্যন্ত । মানে ৯ , ১ , ২ … ৭ এভাবে উল্টোভাবে আসবে । তারপর সোজা ৮ । ৮ নাম্বারে সে একটা নীল বক্স খুলে । সাথে সাথে মুভির অনেক কিছু চেঞ্জ হয়ে যায় । এটার কারন কি?

.

.

●► স্বপ্নে ঢুকেছিল ঘুমের মাধ্যমে । বাস্তবে সে হিটম্যান বলেছিল কাজ হয়ে গেলে নীল চাবি পাবে । তো ডায়ান এটাকে স্বপ্নে ভেবে নিয়েছে সেই চাবি দিয়ে নীল বক্স টা খুলবে । বলে নেয়া ভাল , নীল রং হল দু:খের প্রতীক । যেমন গোলাপী রং ভালবাসার প্রতীক । তেমনি নীল রং দিয়ে দু:খ কস্টকে বুঝানো হয় । আর নীল বক্স খোলা মানে দু:খের দুনিয়ায় প্রবেশ = বাস্তবে প্রবেশ । কারন তার বাস্তব জীবন ব্যার্থ । প্রিয়জন নেই বলে। বক্স খোলা দিয়ে বুঝানো হয়েছে স্বপ্ন থেকে বাস্তবে ফিরে আসা । ঠিক যেমনটা আমরা No Smoking মুভিতে দেখেছি জন আব্রাহাম বাথ টিউবের মাধ্যমে স্বপ্নে প্রবেশ করে এবং ফিরে আসে ।

.

●► মুভিতে T Table এ একটা এশ ট্রে = সিগারেটের ছাই ফেলার ট্রে দেখা যায় । আপনি একটু খেয়াল করলেই দেখবেন , বক্স খোলার পর সেই T Table এ এশ ট্রে ছিল । এটার মানে বাস্তব । আর স্বপ্নেও সেই টেবিল দেখানো হয় কিন্তু এশ ট্রে দেখানো হয় না , মানে সেটা ছিল স্বপ্ন ।

.

●► মুভির শেষে ডায়ান আত্মহত্যা করার আগে দুইজন বৃদ্ধ বৃদ্ধাকে দেখতে পায় । তারা কে ছিল? তারা ছিল যেকোন দুইজন মৃত মানুষ যাদের সে কল্পনা করছিল ।

.

●► মুভির প্রথম দিলে একজন কুতসিত চেহারার লোক দেখে এক ব্যাক্তি হার্ট এটাক করে মারা যায় । আসলে সে লোকটা ছিল ডায়ান নিজে । আর কুতসিত চেহারাটা ছিল তার কস্টে ভরা বাস্তব । সে তার বাস্তব কে সহ্য করতে পারেনা কারন বাস্তবে সে ব্যার্থ । তাই স্বপ্নে সে তার কুতসিত চেহারা (বাস্তব) কে দেখে হার্ট এটাক করে মারা গিয়েছে ।

.

.

আমি নিশ্চিত এই মুভির এক্সপ্লেনেশন পড়ার পর ও আপনার মনে অনেক প্রশ্নই হয়ত রয়ে গিয়েছে। থাকাটাই স্বাভাবিক । কারন ২১ শতকের সেরা মুভি তো হুদাই কয় নাই? :p আমি কখনও এই মুভি কাউকে সাজেস্ট করিনি । কারন মুভিটি দেখার পর আমাকেই উল্টা বলবে কি মুভি দিলেন কিছুই বুঝিনাই । যাই হোক , মুভিটি MLWBD .com আমাদের সাইটে বাংলা সাবটাইটেল সহ ৪০০এমবি এবং ৭০০এমবির গুগল ড্রাইভ লিংক পাবেন । ডাওনলোড করে দেখে নিন 🙂 আর না বুঝলে তো আমি আছিই 🙂

.

ধন্যবাদ। কেমন লেগেছে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না <3 লিখায় ভুল ত্রুটি থাকলে ক্ষমাপার্থী :'(

Categories

Leave a comment

Name *
Add a display name
Email *
Your email address will not be published
Website

Download & Watch Online
x